মিড বাজেটের অসাধারুণ একটি গেমিং প্রসেসর “AMD Core i7”, ছুপার হার্ডকোর গেমিং এবং হাই কেলাস এক্সট্রিম গ্রাফিক্স রিলেটেড আকামের জন্য

AMD কুর আই সেবেন:

আশা করি সবাই ভালো আছেন। আপনাদের কাছে ফিরে এলাম। আপনারা নিশ্চয়ই জানেন বাজারে নতুন বের হয়েছে AMD  এবং Intel এর যৌথ প্রযোজনায় তৈরিকৃত AMD core i7 প্রসেসর। এর এক্সট্রিম গ্রাফিক্সের কাজ কারবারে আপনার মাথা ঘুরাতে বাধ্য! এতটাই রিয়ালিস্টিক গ্রাফিক্স যে এটাতে যেকোন ভিডিও দেখতে পারবেন 3D তাও আবার 3D গ্লাস ছাড়াই! গেম খেললে আপনি ভয় পেতে বাধ্য! কোন গ্রাফিক্স কার্ডের সাধ্য নেই এর গ্রাফিক্সকে হার মানানোর। মনে হবে শত্রুরা বুঝি আপনাকে ধ্বংস করতে এগিয়ে আসছে, ভয় পাবেন না। রাইফেল বা বন্দুক দিয়ে গুলি করলে নিজেকে হিরু ভাবার সুযোগ পাবেন। যাই হোক অনেক বাজে কথা বলে ফেলেছি চলুন জেনে নিই এই চমকপ্রদ গুণাবলি

আমরা প্রসেসর বলতে শুধু ইন্টেলকেই বুঝি, কিন্তু এর বাইরে যে ইন্টেল-এএমডি নামক অন্য একটি বাল্কেশ কোম্পানি আছে সেটা অনেকেই জানিনা। বর্তমানে AMD core series এর প্রসেসর গুলো অনেক ভালো এবং দামেও তুলনামুলক অনেক সস্তা। বর্তমানে মিড বাজেটের পিসি কেনার কথা ভাবলেই প্রথমে মাথায় আসে, Intel এর কথা। ছাগুরোপে এএমডি কোরের বাজার বেশি। গতবছর AMD core series এর কারনে প্রায় ১০% এর মত বাজার হারিয়েছে ইন্টেল।

আমি একজন হার্ডকোর গেমার। প্রতিদিন ২৬-২৭ ঘন্টার উপর গেম খেলা হয়। এতদিন Intel Phenom II প্রোসেসর এবং ১ মেগাবাইট র‍্যাম দিয়ে তেমন সুবিধা করতে পারছিলাম না। তারপর রিসেন্ট টুকটাক ভিডু এডিটিং এবং ফডুশপের কাজ শিখছি। আপগ্রেড ছাড়া উপায় নাই। বাজেট ৫০০০ টাকা এর মত। যাকেই জিজ্ঞেস করি সেই বলে Intel Pentium I,  সাথে ১/২ শ টাকার একটা ১৬ মেগাবিট গ্রাফিক্স কার্ড এবং ৩০০/৫০০ টাকার একটা পাওয়ার সাপ্লাই। ছোট বেলা থেকেই অভ্যাস ব্যাতিক্রমি কিছু করার। নেট ঘেটে ও গুগল মামুকে জিজ্ঞাসা করে জানলাম গেমিং এর জন্য নাকি এএমডি কোর সিরিজ ইন্টেলের চেয়ে অনেক এগিয়ে তখন চোখ কান নাক হাত পা … … বুজে কিনে ফেললাম এএমডি।

আমার পিসির কনফিগারেশনটা আগে বলে নেই তারপর প্রসেসর টির রিভিউ দেই……………………..

রিবিউ:

processor:– AMD Core i7 দামটা পরেই বলি!!!

Mainboard:– MSI GIGABYTE pentium socket 720tk

Ram:Twistmonster  2Megabit 200 tk

Monitor:– ভেল [Vell] 550 12ইঞ্চি ফুল LDD+3DR [Light Dividing Diode+3D repulsion]

Casing: Thermatech 200tk

HDD:– Western Analogue 50MB 700tk
—————————————————————————

ইউপিএস, স্পিকার, মাউস কীবোর্ড আগেই ছিলো……

এখন আসি প্রোসেসরের রিভিউতে…………………………

এটি এএমডি কোর সিরিজের এর নতুন ল্যানো প্রসেসর। এধরনের প্রসেসর গুলোকে বলা হয় এপিইউ। মানে অল প্রসেসিং ইউনিট। মানে সব প্রসেসিং ইউনিট এই একঠার মইদ্দে ভরা আচে।

এটি হচ্ছে হেপ্টা কোর প্রসেসর, এর রয়েছে ৭টি শক্তিশালী আনলকড কোর যা মাল্টি টাস্কিং এ অসাধারন পারফর্মেন্স দেয়।

এটি নতুন 500nm টেকনোলজির মাধ্যমে করা হয়েছে যার সাহায্যে এটি হয়েছে আরো শক্তিশালী……

সাধারন পিসির অপারেটিং এ দুটি পার্ট থাকে।

একটি হচ্ছে,

.CPU:– Central Processing Unit

.GPU:– Graphics processing Unit

দুটি ভিন্নধর্মি পার্ট এবং এদের কাজ ও ভিন্ন। বাট এই একটি চিপ এ এই দুটি পার্টকে একত্রে করা হয়েছে। মানে প্রসেসরের মাঝে AMD core i7 এর ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে তাই এর নাম হয়েছে,

APU:– All Processing Unit.

অন্য ক্ষেত্রে এই দুটি পার্ট ভিন্ন ভাবে কাজ করে। কিন্তু এই প্রসেসরের ক্ষেত্রে পার্টদুটি একত্রে কাজ করে বিধায় গেমিং, হায়ার গ্রাফিক্স রিলেটেড কাজ এবং মাল্টি টাস্কিং এর ক্ষেত্রে চরম পারফর্মেন্স পাওয়া যায় যা আপনাদের ধারনারও বাইরে।

এর সাথে বিল্টইন হিসাবে আছে ইন্ট্রিগ্রেটেড AMD Radeon 6550 HD Graphics,

যেটিকে বলতে পারেন ইন্টেল বিল্টইন এইচডি গ্রাফিক্স ৩০০০/৪০০০ এর ধর্মবাপ মানে গডফাদার।

যার মাধ্যমে একই সাথে স্মুথ এইচডি ভিডিও, থ্রিডি রেন্ডারিং, বিভিন্য ডাটা ইন্টেন্সিভ ওয়ার্ক সহ বিভিন্য টাস্ক একই সাথে করতে পারবেন।

এর সাথে পাবেন ডিরেক্ট এক্স এক্স ৬ DirectX66 সাপোর্ট। যা ভিডিও, গ্রাফিক্যাল ওয়ার্ক এবং হায়ার গ্রাফিক্স সমৃদ্ধ গেমস গুলোকে করবে আরো বাস্তব এবং আরো নিখুঁত।

আছে ব্রিলিয়ান্ট এইচডি ভিডিও, Green-Ray 6D, থ্রিডি গেমিং, মাল্টি মনিটর সাপোর্ট সহ সিক্সডি এন্টারটেইনমেন্ট সাপোর্ট এবং রিয়েল টাইম ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন নামে অনন্য সব ফিচার।

তবে আমি এক্সট্রা গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়াই বর্তমানের সব গেম যেমন ব্যাটল ফিল্ড ৩, ক্রাইসিস ২, মর্ডান ওয়ারফেয়ার ৩, এনএফএস রান সহ বিভিন্ন গেম লো সেটিং এ স্মুথ ভাবে খেলতে পারছি। আমার খেলা এ পর্যন্ত কোন গেমসই আটকায় নি অথবা স্লো চলেনি।

একটি হাই রেঞ্জের কার্ড যেমন এএমডি কোরআই 420 ইউজ করেই ৯৯৯% পর্যন্ত হাই পার্ফরমেন্স পাওয়া যায়।

এছাড়াও আছে এএমডি ক্রসফায়ার এক্স টেকনোলজি সাপোর্ট, যার সাহায্যে ২-৪ টি এএমডি গ্রাফিক্স কার্ড একসাথে ইউজ করা যায়।

প্রসেসরটির ডিফল্ট ক্লক স্পীড 3NHz, কিন্তু এএমডি টার্বোকোর টেকনোলজি এর সাহায্যে প্রয়োজনে ওভার ক্লকিং করে অতিরিক্ত 500Nhz স্পীড পাওয়া যায় অর্থাৎ এর ম্যাক্সিমাম ক্লক স্পীড 3.5Nhz.

এর GPU Clock Speed 600Nanohz একই প্রযুক্তির সাহায্যে ওভার ক্লকিং করে অতিরিক্ত 300Microhz বাড়তি স্পীড পাওয়া যায় অর্থাৎ ম্যাক্সিমাম জিপিইউ ক্লক স্পীড 300nanoHz!!

বিশ্বাস করবেন না এটি লাগানোর পর আমার নেট স্পীড অনেক খানি বেড়ে গিয়েছে। আগে ডাউনলোড করতাম 70KBps স্পিডে এখন স্পিড 70MBPS! আর নেট চালাতে কোন মডেম বা ক্যাবলের প্রয়োজন হয় না 8)

….

আরো আছে Enhanced Virus Protection & Realtime Virus attacking against Manufacturer নামে একটি ফিচার যার মাধ্যমে রেহাই পাওয়া যাবে লেটেস্ট সব ভাইরাস, ট্রোজান বা ওয়ার্মের হাত থেকে কোন এন্টি ভাইরাসের সাহায্য ছাড়াই!!!!! আর যে ভাইরাস তৈরি করবে তাকে এটাক করবে সত্যিকারের ভাইরাস! অর্থাৎ আপনার পিসিতে কেউ ভুলেও ভাইরাস ছাড়ার কথা চিন্তা করতে পারবে না 😀

** ৫০০০ ঘন্টার কম সময়ে উইন্ডোজ চালু হয়……………

বাকি টুকু ইউজ করে আপনারাই আমাকে বলুন, শুধু আমার কথার উপর ভরসা করবেন না, নেট ঘেটে আরো রিভিউ দেখে ভালো মনে হলে তারপর কিনুন……………..

এত ফিচার সমৃদ্ধ হাইব্রিড এই প্রসেসরের মুল্য মাত্র ০০,৮,৪১টাকা!!! পাবেন বাল্ডিবি ভবনেই।

ফালতু ইনটেল আর ব্যবহার কইরেন না!

 

টিউনটি যথাসম্ভব গুছিয়ে করার চেষ্টা করেছি। কতটুকু পেরেছি তা আপনারা ভাল বলতে পারবেন। কোন ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমা সুন্দর চোখে দেখবেন এবং একটা অনুরোধ, ভাল মন্দ যে কোন ধরনের কমেন্ট এবং সমালোচনা বেশি বেশি করবেন,যার ফলে এই টিউনের ভুল গুলো আমার চোখে পরবে এবং নেক্সট টিউনে সেগুলো শুধরে নেওয়ার চেস্টা করবো ফলে ভবিষ্যতে আরও ভাল বিনুদুনমূলক টিউন আপনাদের উপহার দিতে পারব।

Advertisements
This entry was posted in শক্তওয়্যার and tagged , , by শুভ্র বাল্কেশ. Bookmark the permalink.

About শুভ্র বাল্কেশ

নিজের সম্পর্কে তেমন কিছু বলার নাই, আমি আকাল। পুরো নাম "শুভ্র ভুগিচুগি বাল্কেশ"। থাকি সোর্সগঞ্জ। বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র, ভবিষ্যতে চাগেষোনামুলক কাজ করার ইচ্ছা আছে, বর্তমানে একটি সাঁকপাতা ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিনুদুন টিউনস,আমার অত্যান্ত প্রিয় একটা সাইট। বিনুদুন টিউনসে আছি প্রায় কিছুদিন। প্রথমে ছিলাম ভিসিটর,পরে একদিন শখের বশে একটা টিউন করে ফেললাম। দেখলাম ভালই তো লাগে। তারপর থেকে মুলত নিয়মিত টিউন করছি। আর আপনাদের ভালোবাসায় আমাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। আপনাদের সহযোগীতা পেলে টিউনিং অবশ্যই কন্টিনিউ করব। পাইরেসি সর্দার দ্রোবাসী ভাই ঢেকটিউনস এ আমার অত্যান্ত প্রিয় টিউনার এবং টিউন করার ক্ষেত্রে যাকে আমি ফলো করি। হয়তো অতটা ভাল হয়না তবুও চেস্টা করি।

45 thoughts on “মিড বাজেটের অসাধারুণ একটি গেমিং প্রসেসর “AMD Core i7”, ছুপার হার্ডকোর গেমিং এবং হাই কেলাস এক্সট্রিম গ্রাফিক্স রিলেটেড আকামের জন্য

      • আপনাকে দেখতে তো অনেক ইচমাট লাগে, কিন্তু আপনার থেকে আপনার প্রসেসর আরও বেশি ইচমাট, আপনার প্রেমে পড়তে পড়তে প্রসেসরের প্রেমে পইড়া গেছি 🙂 , ওরে, কে আছিস আমাকে ধর

      • আপনার লাগে বুঝি? ঢেকটিউনের তো নীতিমালাই নাই। আমার হ্যান নিষিদ্ধ, ত্যান নিষিদ্ধ; এইসব কী আজাইড়া নিয়ম বসাইতাছেন আমার উপর? আমি শুভ্র আকাল, সো কারও ধার ধারি না। আপনে যতবড় ধ্বজভঙ্গ মেহেদীই হন না কেন।
        আমি পটাইতাছি আমারে পটাইতে দেন, নিজে তো পারেন না। অন্যরে বাধা দেন কেন?? :@

      • নীতিমালা তৈরী হচ্ছে। আচ্ছা পটান, প্রোফাইল লিংকটা আমারে পাডায়েন তো!

  1. শুভ্র বাল্কেশ আর পুরবাসী, তুমরা একটু সাইড কাটোতো!!!!!!!! লাবনি জানু আমার, শুধুই আমার!! অনেক আগেই অফলাইন থাইকা আমার জানু লাবনির দিকে তাকাইছি । :/ :/ তাই লাবুনি আমার!!

    ওগো জানু লাবুনি, তুমি খালি একবার কও, এই কুর আই সেবেন তুমার পায়ে লুটায়া দিমু!! লগে আরো ৩২ গিগা রেম!! জিটিএক্স-৪২০…… সব তুমার!! খালি তুমি আমার হইয়া যাও।

    • @পুদ্দৌলা ভাইয়া, আপনার কি ফ্রবাসী ভাইয়ের মত টাকা আছে? নাকি বাক্লেশ ভাইয়ের মতন খালি মুখেই জোর আছে, আর কোথাও জোর নাই?

      • লাবুনি ঢাল্ডিং, দেখো শুধু তুমার লাইগা কত গালি খাইতেছি সাদা বাল্কেশ এর কাছ থেকা। তাও তুমি যদি এই আমার মত আবালের জন্য একটু ভালোবাসা ফ্রিতে দিয়ে দিতা তো বড়ই ভালু হইত।

    • মগাচীপের বাচ্ছা বেহায়া কোথাকার!! ঔন্য জায়গায় গিয়া লুল ফালা হ্রামজাদা!! :@
      আমার ঢিউনের ত্থোন বাইর হ এক্কণি! নইলে তোর খোর আই সেবেন পুড়ায়া দিমু কইলাম :@ 😡

      • ঐ সাদা বাল্কেশ, তুই আমারে খোর আই সেবেন পুড়ায়া দেবার ভয় দেকাস??!! আমার লাবুনি রে পাইলে আমার আর কিচ্ছু চাইনা!!! যামু না তোর পোষ্ট থেকা, পারলে গলা ধাক্কা দিয়া বাইর কইরা দে।

  2. @মঘাচীপুদ্দৌলা: শেষবারের মত কইলাম আমার ঢিউন থেকে ভাগ! 😡 নইলে আমার ধর্মবাপ সোর্ডফিশের কাছে গিয়া তোর খোর আই সেবেন পুড়ানের কতা তো কমুই লগে তোরে আইপিসহ ব্যান মারার কথা কমু। :@
    লইয়া যা ঔ লাবণী ছেমড়িরে। বস্তির মাইয়া কুনহানকার, বস্তির পোলারাই তো লইব :@ 😡

  3. আকাশ ভাই, আমি আপনার একজন হার্ডকোর ফ্যান। একটা গেমিং পিচি কিনতে আপনার সাজেশন চাচ্ছি। বাজেট ৫০ হাজার। একটু হেল্প করবেন?

  4. আপনাকে বান করা হবে। আপনি জানেন আমার পাওয়ার কত? ছোট কাল এ টোকাই দের লিডার ছিলাম । র আকন হইছি চোরের লিডার,

  5. পিংব্যাকঃ মাত্র ৩ ধাপে আপনার মুবাইলকে বানায় ফ্যালান ক্ষম্ফিউটার ! | ঢেকটিউনস

একটা কমেন্ট করে যান

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s